বন্ধুরা, আমরা কয়েকদিন ধরে শুনে আসছি পশ্চিমবঙ্গ রাজ্যের উত্তরবঙ্গের দার্জিলিং, জলপাইগুড়ি, কালিম্পং এবং আলিপুরদুয়ার জেলাগুলিতে বৃষ্টি হচ্ছে। যদিও বৃষ্টি হচ্ছে হালকা থেকে মাঝারি। এমনকি এও শোনা যাচ্ছে উত্তরবঙ্গের ওই জেলাগুলিতে মাঝে মাঝে ৩০ থেকে ৪০ কিলোমিটার গতিবেগে বাতাসা চালাচ্ছে। তবে এমনটা বাতাস নয় যে ক্ষয়ক্ষতির কোন সম্ভাবনা হয়েছে।

weather report for rain
Photo by Genaro Servín from pexels.com

উত্তরবঙ্গে কয়েক দিন ধরে বৃষ্টিপাতের কারণে উত্তরবঙ্গের বেশিরভাগ জেলাগুলিতে তাপমাত্রা খুব একটা বাড়েনি, যেমনটা স্বাভাবিক থাকা দরকার তেমনটাই রয়েছে। তাই উত্তরবঙ্গের জেলাগুলিতে তাপপ্রবাহ তেমন একটা দেখা যায়নি, শুধুমাত্র উত্তর চব্বিশ পরগনা, দক্ষিণ চব্বিশ পরগনা এবং মালদহ জেলা ছাড়া।

তবে দক্ষিণবঙ্গের প্রায় সমস্ত জেলাগুলোতেই তাপমাত্রা আকাশছোঁয়া রয়েছে। দক্ষিণবঙ্গের দু একটি জায়গা ছাড়া সমস্ত জেলাতেই সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ৪৩°C বা ৪৪°C রয়েছে । সেই সঙ্গে চলছে লু-তাপপ্রবাহ, তাই বাড়ির বাইরে থেকে বেরোলেই যেন মনে হচ্ছে আগুনের গোলা মুখেতে মারছে। পাঁচ থেকে দশ মিনিট বাড়ির বাইরে বেরোলেই জামা কাপড় যেন আগুনের মতো গরম হয়ে যাচ্ছে।

সেই জন্য দক্ষিণবঙ্গের জেলাগুলির বেশিরভাগ মানুষই গরমের কবলে পড়ে খুবই ভোগান্তিতে পড়েছে। কারণ এখন ধান কাটা বা তোলার সময়, তাই এই পরিস্থিতিতে বেলা দশটা বা এগারোটার পর মানুষ বাড়ির বাইরে বেরোতে না পারার কারণে, মানুষ কাজকর্ম করতে পারছে না।

গ্রামীণ অঞ্চল গুলোর তুলনায় শহর অঞ্চল গুলোতো আরও রোদে খা খা করছে। পিচ রাস্তা বা পাকা রাস্তার ওপর দিয়ে গেলে যেন মনে হচ্ছে পিচ রাস্তা বা পাকা রাস্তা থেকে গরম ভাব বার হচ্ছে। এমনকি পাকা বাড়ির ভেতরে তে পাখার বা ফ্যানের বাতাসও যেন গরমের গোলা। ঘরের বাইরে এবং ভেতরে সব জায়গাতেই যেন মানুষকে গরমের শিকার হতে হচ্ছে। তবে যাদের মোটা দেওয়ালের মাটির বাড়ি রয়েছে তাদেরই একটু শান্তি।

যাই হক এই গরমের ভোগান্তি থেকে নিষ্কৃতি পাওয়ার জন্য সকলেই চেয়ে বসে আছি একটুকু বৃষ্টির দিকে। কবে বৃষ্টি হবে? কবে এই গরমের দাবদহ যাবে? এটা এখন সকলের মুখে মুখে আলোচনার বিষয়।

আলিপুর আবহাওয়া দপ্তর জানিয়েছে, এই গরমের তাপদাহ আরো তিন দিন থাকবে অর্থাৎ আজ শনিবার থেকে আগামী সোমবার পর্যন্ত তাপমাত্রা একই রকম থাকবে। তবে আবহাওয়া দপ্তর জানিয়েছে যে বঙ্গোপসাগরে ঘূর্ণবাত সৃষ্টি হচ্ছে, যার কারণে পশ্চিমবঙ্গের উপকূলবর্তী এলাকাগুলোতে জলীয়বাষ্প প্রচুর পরিমাণে প্রবেশ করতে পারে। তাই দক্ষিণবঙ্গের সমুদ্র উপকূলবর্তী এলাকা যেমন পূর্ব মেদিনীপুর, দক্ষিণ চব্বিশ পরগনায় সোমবার থেকে হালকা বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে।

সেই সঙ্গে মঙ্গলবার থেকে অন্যান্য জেলাগুলিতে যেমন পশ্চিম মেদিনীপুর, উত্তর 24 পরগনা, পূর্ব বর্ধমান, পশ্চিম বর্ধমান, ঝাড়গ্রাম, বাঁকুড়া, বীরভূম, পুরুলিয়া জেলাগুলিতে হালকা বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে। তবে বৃষ্টির সম্ভাবনা থাকলেও জেলাগুলির সব জায়গায় কিন্তু বৃষ্টি নাও হতে পারে, হয়তো কিছু কিছু জায়গায় হতে পারে। তবে গরম ভাব অবশ্যই থাকবে, এবং ধীরে ধীরে কিছুদিন তাপমাত্রা একটু নরমাল থাকবে। পরে অবশ্যই কিন্তু তাপমাত্রা ধীরে ধীরে আবার বাড়তে থাকবে।

এখন দেখার বিষয় বৃষ্টি পুরো জেলাগুলো জুড়ে হয় কিনা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *